গোয়াইনঘাট প্রচ্ছদ

গোয়াইনঘাটে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে পাশবিক নির্যাতন ! থানায় অভিযোগ দায়ের

ডেইলি গোয়াইনঘাট ডেস্ক :: সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার ৯নং ডৌবাড়ী ইউনিয়নের লংপুর গ্রামে। পূর্ব শত্রুতার জের ধরে আবু বক্বর (৪০) নামের এক যুবককে রাস্তা থেকে উঠিয়ে নিয়ে মধ্য যুগিও কায়দায় নির্যাতনের ঘটনায় তারই ভাই বিলাল উদ্দিন বাদী হয়ে গোয়াইনঘাট থানা একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানাযায়, লংপুর গ্রামের আলাউর রাহমান (৫৫), লুৎফুর রহমান (৩০), ফয়জুর রহমান(৩৫), ছয়দুর রহমান (৪০) সর্ব পিতা মৃত কলিম উল্লাহ, আনোয়ার হোসেন (২৫) পিতা আলাউর রাহমান, আতাউর রহমান (২৬) পিতা মৃত আব্দুর রহমান গংসহ অঞ্জাত নামা ৭/৮ জন বিবাদী একই এলাকার এবং পাশাপাশি বাড়ির লোক হওয়ার কারণে। বিবাদীগনের সাথে দীর্ঘ থেকে বিভিন্ন বিষয়াদিসহ জায়গা জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। এছাড়াও ভূমি সংক্রান্ত বিরোধ থাকার কারণে বিঞ্জ আদালতে মামলা চলমান রয়েছে যাহার নং-০৯/২০১০ইং। এরই রেশ ধরে ২৫জুন দিবাগত রাত সাড়ে ৮টায় সিলেট শহরস্থ ধোপাদিঘীর দক্ষিণ পাড়স্থ হাফিজ কমপ্লেক্সের পাশে রোহান পর্দা গ্যালারি নামক দোকান ঘরের সামনে বিবাদীগন অতর্কিত হামলা চালিয়ে আমার অপর ভাতিজা আসাব উদ্দিন’কে গুরুতর আহত করে যাহা পরবর্তীতে সিলেট কোতোয়ালি থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে যাহার নং-১৭/২০ইং। বর্তমানে উক্ত মামলাটিও বিঞ্জ আদালতে চলমান রয়েছে।

উপরোক্ত বিষয়াদিসহ নানাবিধ ঘটনার সুত্র ধরে বিবাদীগন ফের গত ৫অক্টোবর সোমবার রাত ৯ঘটিকার সময়। স্থানীয় ফতেহপুর বাজার হইতে বাড়ি ফেরার পথে আবু বক্কর (৪০)’র উপর দলবদ্ধ ভাবে অতর্কিত হামলা চালায়। পরে আবু বক্করকে হাত পা বেধে লুৎফুর রহমান’র বাড়িতে নিয়ে দ্বিতীয় দফায় নির্যাতন চালায়ি গুরুতর আহত অবস্থায় বসত ঘরের খুঁটির সাথে বেঁধে রাখে দূর্বৃত্তরা। এঘটনার খবর পেয়ে আহত আবু বক্করকে স্থানীয় এলাকাবাসীর সহযোগিতায় উদ্ধার করি এবং সিওমেক হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হলেও বর্তমানে সে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে।

এ ব্যাপারে অভিযোগকারী বিলাল উদ্দিন জানান, মধ্যে যুগিও কায়দায় এমন বর্বর নির্যাতনের শিকারে আমার ভাইয়ের অবস্থা খুবই খারাপ।অনতি বিলম্বে আমার আনিত অভিযোগে উল্লেখিত বিবাদীগনের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য স্থানীয় প্রশাসনের প্রতি জোরালো হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *